আগামী বছর থেকে যুক্ত রাজ্যে রোডের শৃংখলা ও  নিরাপত্তার জন্য নতুন আইন।

আগামী বছর থেকে যুক্ত রাজ্যে রোডের শৃংখলা ও  নিরাপত্তার জন্য নতুন আইন।

মাহমুদুর রহমান শানুর 
 
 যুক্তরাজ্য সরকার সড়কে শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তার  অংশ হিসাবে ২০২২ সালের প্রথম থেকে গাড়ি চালানো অবস্থায় ড্রাইভারদের ফোন ব্যবহার করা নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে। আইন অমান্য করলে লাইসেন্সে  ৬ পয়েন্ট কেটে নেয়া হবে এবং ২০০ পাউণ্ড জরিমানা করা হবে।

আগামী বছর থেকে এ আইন শক্তিশালী করার পরিকল্পনা করছে বলে জানিয়েছে ডিপার্টমেন্ট ফর ট্রান্সপোর্ট।

বর্তমান যুক্তরাজ্যের আইনের অধীনে, হ্যান্ডহেল্ড ডিভাইস ব্যবহার করার সময় ড্রাইভারদের টেক্সট করা বা ফোন কল করা নিষিদ্ধ করা আছে। ২০২২ থেকে, ড্রাইভারদের গাড়ি চালানোর সময় ফটো বা ভিডিও তুলতে, প্লেলিস্টের মাধ্যমে স্ক্রোল করতে বা তাদের ফোনে গেম খেলার অনুমতি দেওয়া হবে না। ড্রাইভিং করার সময় যে কেউ তাদের হ্যান্ডহেল্ড ডিভাইস ব্যবহার করে ধরা পড়লে তাকে ২ ০০ পাউণ্ড জরিমানার নোটিশ এবং পাশাপাশি লাইসেন্সে ৬  পয়েন্ট যোগ করা হবে।

বৃটিশ ট্রান্সপোর্ট সেক্রেটারি গ্রান্ট শ্যাপস বলেছেন,এ্যাকসিডেন্ট রোধে এ আইন করা হচ্ছে। এ আইনের ফলে ড্রাইভাররা সাবধানতা অবলম্বন করবেন। এর ফলে এ্যাকসিডেন্ট কমে আসবে।

তিনি আরও বলেন,২১শতকে আধুনিক ডিজিটাল যুগে এসেও রোড সেইফটির জন্য কঠিন আইন করতে হচ্ছে মানুষের জীবন রক্ষার জন্য।

যদিও আমাদের রাস্তাগুলো বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ বিবেচিত, আমরা আমাদের পুরস্কার বিজয়ের চিন্তা মাথায় রেখে সেগুলোকে নিরাপদ করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাবো। 

সরকার সাধারণ জনগণ এবং ড্রাইভারদের মধ্যে একটি জরিপের মাধ্যমে বুঝতে পেরেছে শতকরা ৮১% মানুষ মনে করে গাড়ি চালানোর সময় ফোন বা ডিভাইজ ব্যবহার করা উচিত না। তাই মানুষের জীবন রক্ষায় সড়ক নিরাপত্তা আইনকে আরও কঠোর করতে এ আইন।

গাড়ি চালক বা ড্রাইভারদের মনিটর করার জন্য প্রতিটি সিগনাল লাইটের ক্যামেরাসহ নতুন ডিভাইজ বসানো হয়েছে এছাড়া মনিটরের জন্য অতিরিক্ত রোড এ্যাণ্ড হাইওয়ে পুলিশ মোতায়েন করা হবে।