আমি একটুখানি থামবো

আমি একটুখানি  থামবো

-গোলাম রববানী

কে জানে কাহার কলিজা পুড়ে হয়ে আছে খাক,

হোক নতুন কিংবা পুরাতন এক অতিশয় শোক!

কে যে কাহার নাড়ি কাটে বসে বসন্তের বাতাসে

কী চমৎকার আলাপী আলাপে উমেদ আগারে।

মন বোঝে বোঝে না তবুও বোঝে না কি বুঝে না

ঝরে যায় পাতা খসে যায় যে বুটা তবুও পড়ে না।

মন তো মানেনা চোখ যে পোড়ে না কেমন অনলে

ধরে না আগুন দাউ দাউ পড়ে না তবুও অগ্নিযুগে!

যুগ যুগান্ত ধরে খসিয়াছে মিনি কাঁচীছে কলা গৃহে

ধরাছোঁয়া যে মেলে না শান্তির ধরা না পাবে না নরে!

তাই একটু শুধু বিরতি বিরাম নিয়েছি কলম ধরেছি

যা আসে মনে তাই লিখেছি আমরা মিথ্যায় বন্দেছি!

হাঁটি হাঁটি পা পা এগিয়ে ধীরে ধীরে মহাকাল পেরিয়ে

মা মাটি শিশু কিশলয় বিহগী কেবল বিকট সংকেতে