গোলাপগঞ্জের ঢাকাদক্ষিণ বাজারের সরকারি পুকুর রক্ষায় বিভাগীয় কমিশনার বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান 

গোলাপগঞ্জের ঢাকাদক্ষিণ বাজারের সরকারি পুকুর রক্ষায় বিভাগীয় কমিশনার বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান 

বাংলাভাষী ডেস্ক 


সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার ঢাকাদক্ষিণ বাজারের সরকারি পুকুরে জেলা পরিষদের মার্কেট নির্মানের পরিকল্পনা বাতিল এবং পুকুরের মধ্যে নির্মিত দেয়াল অপসারণের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী। 
বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টায় সিলেট বিভাগীয় কমিশনার এর নিকট এ দাবি জানিয়ে শত শত মানুষের স্বাক্ষরসহ স্মারকলিপি প্রদান করেছেন এলাকাবাসী। 
স্মারকলিপিতে তারা উল্লেখ করেন, ঢাকাদক্ষিণ একটি ঐতিহ্যবাহী প্রাচীন জনপদ। ঢাকাদক্ষিণ বাজারের একমাত্র সরকারি পুকুরটিও বাজারের একটি প্রাচীন নিদর্শন। 
সম্প্রতি জেল পরিষদ পুকুরটির মধ্যে মার্কেট নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে। ইতিমধ্যে তারা পুকুরের সীমানা থেকে প্রায় ৩০ ফুট ভিতরে দেয়াল নির্মাণ করে পুকুরটিকে প্রায় ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে। 

বর্তমান অবস্থায় পুরো ঢাকাদক্ষিণবাসীর সাথে প্রবাসীরাও বিদেশ থেকে উদ্বেগ প্রকাশ করে পুকুর রক্ষার দাবি জানিয়েছেন। 

পুকুর রক্ষার পরিবর্তে পুকুরে মার্কেট নির্মাণ স্বার্থান্বেষীদের সুযোগ করে দেয়ার অপচেষ্টা বলে স্মারকলিপিতে তারা উল্লেখ করেন, প্রাকৃতিক জলাশয় রক্ষায় সরকার কঠোর আইন করেছেন। তারপরও জেলা পরিষদ স্থানীয়দের মতামত, প্রয়োজনীয়তা এবং ইতিহাস-ঐতিহ্যকে অগ্রাহ্য করে পুকুরে মার্কেট নির্মান করছে। 
এলাকাবাসী অবিলম্বে পুকুরের মধ্যে মার্কেট নির্মানের পরিকল্পনা বাতিল এবং পুকুরের মধ্যে নির্মিত দেয়াল অপসারণের দাবি জানান। 
তারা পুকুরের প্রকৃত সীমানা নির্ধারণ করে যথাযথ ভাবে সংরক্ষণ এবং সৌন্দর্যবর্ধনের ব্যবস্থা করে পুকুরটি রক্ষায় যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সিলেট বিভাগীয় কমিশনারের সহায়তা কামনা করেন। 
তারা উল্লেখ করেন, পুকুরের দুুই পাশে সরকারি প্রতিষ্ঠান মাঝখানে মনোরম পরিবেশে পুকুরটি অবস্থিত। 
পুকুরটিকে যথাযথ সংরক্ষণ ও সৌন্দর্যবর্ধন করলে এটি একটি দৃষ্টিনন্দন স্থানে পরিণত হবে। স্থানীয়রাসহ শ্রী চৈতন্য মন্দিরে আগত পূর্ণার্থীরা এখনে বিশ্রাম নেয়ার সুযোগ পাবেন এবং বিকেল বা সকালে অবসর বিনোদনের সুযোগ সৃষ্টি হবে। 

তারা বলেন, শতাব্দী প্রাচীন পুকুরটি হাসপাতালের পুকুর হিসেবে পরিচিত ছিল, এখন শোনা যাচ্ছে পুকুরটি জেলা পরিষদের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে।
ঢাকাদক্ষিণ বাজার একটি অতিবর্ধিষ্ণু ব্যবসা কেন্দ্র উল্লেখ করে তারা বলেন, ঢাকাদক্ষিণ বাজারে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ছাড়াও বাজারকে কেন্দ্র করে স্থাপিত হয়েছে উপজেলা সাবরেজিস্ট্রার অফিস, উপজেলা প্রাণি সম্পদ অফিস, উপ ডাকঘর, ঢাকাদক্ষিণ সরকারি কলেজ, ঢাকাদক্ষিণ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ, ঢাকাদক্ষিণ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ, ঢাকাদক্ষিণ দারুল উলুম হোসাইনিয়া মাদরাসা, ডাক বাংলো, উপ স্বাস্থ্যকেন্দ্রসহ সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। এই বিশাল বাজারে একমাত্র উন্মুক্ত জলাশয় পুকুরটি। বাজারে কোন ভাবে যদি আগুন লাগে তবে দ্রুত পানি পাওয়ার একমাত্র উৎসও এই পুকুর। তাই পুকুরটি রক্ষায় এলাকাবাসী বিভাগীয় কমিশনারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। 
স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকাদক্ষিণ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও পুকুর রক্ষা কমিটির আহ্বায়ক আব্দুল মুতলিব, গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুর রহমান, ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও  যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল মজিদ রোশন,উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা ও পুকুর রক্ষা কমিটির সদস্য সচিব শাহাবউদ্দিন আহমদ, পুকুর রক্ষা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক  আব্দুস শহীদ খান জিলা, ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও যুগ্ম আহ্বায়ক এস এম আব্দুর রহীম, বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ ও পুকুর রক্ষা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল নূর মছলাই, উপজেলা জাসদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও যুগ্ম আহ্বায়ক নিজাম উদ্দিন, ঢাকাদক্ষিণ বাজার বণিক সমিতির সভাপতি বদরুল ইসলাম জামাল গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইউনুছ চৌধুরী, গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাবের সদস্য ও পুকুর রক্ষা কমিটির সদস্য ফারহান মাসউদ আফছর।