ঢাকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল

ঢাকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল

স্পোর্টস ডেস্ক:
বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের ওয়ানডে ও দুটি টেস্ট খেলতে ঢাকায় পৌঁছেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল। রোববার (১০ জানুয়ারি) সকাল ১০টা ৯ মিনিটে এমিরেটস এয়ারলাইনস যোগে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে ক্যারিবিয়রা।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) একটি  সূত্র এই খবর নিশ্চিত করে জানিয়েছে, রোববার ঢাকায় পা রেখেই সফরকারী দলটির প্লেয়ার ও টিম ম্যানেজমেন্টকে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিতে হবে। দ্বিতীয় পরীক্ষাটি হবে তৃতীয় দিনে, তৃতীয়টি ষষ্ঠ অথবা সপ্তম দিনে, চতুর্থটি সিরিজের মাঝামাঝি। আর পঞ্চম ও শেষটি হবে দেশে ফেরার দুই দিন আগে।

তবে সফরকারী অনুশীলন শুরু করতে পারবে চতুর্থ দিন থেকেই। চতুর্থ থেকে সপ্তম দিন পর্যন্ত ভেন্যুতে এসে নিজেদের মধ্যে অনুশীলন সারতে পারবে। তবে সেটা একান্তই নিজেদের মধ্যে। বাংলাদেশে ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কোভিড সতর্কতার অংশ এই সময়ে অনুশীলনে তারা কোনো নেট বোলার বা সাপোর্ট স্টাফ পাবে না। কেননা নেট বোলার ও সাপোর্ট স্টাফদেরও করোনা পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যেতে হবে। যারা নেগেটিভ হবেন, তারা অষ্টম দিন থেকে ক্যারিবিয়দের নেটে বোলিং করতে পারবেন। অর্থাৎ অষ্টম দিনে গিয়ে নেট বোলার পাবে সফরকারী দলটি।

১৪-১৭ জানুয়ারি চার দিনের প্রস্তুতি শেষে ১৮ জানুয়ারি বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান-বিকেএসপিতে স্বাগতিকদের বিপক্ষে একদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে সফরকারী দলটি।

২০ ও ২২ জানুয়ারি মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গড়াবে সিরিজের প্রথম দুই ওয়ানডে ম্যাচ। এরপর সিরিজ চলে যাবে বন্দরনগরী চট্টগ্রামে। সাগরিকার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে অনুষ্ঠিত হবে ২৫ জানুয়ারি।

ওয়ানডে শেষে টেস্ট সিরিজের আগে ২৮-৩১ জানুয়ারি থেকে চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে ৪ দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে স্বাগতিক সফরকারীরা। এরপর ৩-৭ ফেব্রুয়ারি জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হবে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট। আর  দ্বিতীয় ও সিরিজের শেষ টেস্ট গড়াবে ১১-১৫ ফেব্রুয়ারি মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।