প্রিয়তম

প্রিয়তম

মহুয়া চক্রবর্তী
( ভারত ) 
হে মোর সখা তুমি আজ কোথায়-
বহু বছর পর আজ তোমায় জানাতে এসেছি           
 আমার সকল ব্যথা।
 তুমি কি ভুলে গেছো সেসব দিনের কথা।
সেদিন তুমি অভিমান করে ছেড়ে চলে গিয়েছিলে আমায়।
একবারও তো জানলে না কি ছিল মোর ব্যথা।
কত মোহ ,কত পাপ ,কত শোক, কত তাপ
কতইনা সয়েছি আমি তোমারে সেসব কহিব আজ।
কি ছিল মোর সেদিনের ব্যথা।
হাজার লোকের মাঝে রয়েছি আমি একেলা যে
আধার বাধা আমার জীবন ঘরে।
জানিনা আমি কাঁদি কাহার তরে।
যে জীবন তুমি মোরে দিয়েছিলে সখা
দেখো আজি তাতে কত পড়েছে কলঙ্কের রেখা।
নয়নে ঝরিছে অঝোরধারায় বাড়ি,
সখা- আমি জানি আমি জানি তুমি আর আসিবে না ফিরী।  এমন করেই কাঁদিয়া কাটিবে যামিনী
বাসনা তবুও পড়িবে না
যাও প্রিয় যাও তুমি যাও জয়রথে
বাধা দেব না আমি তোমার জয়ের পথে।
বিদায় নেবার আগে মন যেন
তোমার স্বপ্ন হতে জাগে।
জীবনের ভার বহিব কত আর,
যে আশা ছিল মনে সকল আজ ফুরাইলো,
প্রদীপের আলো নেভার আগেই
আমি নিভিয়ে দিলাম আমার জীবনের আলো