" সবাই একই বিধাতার সৃষ্টি

" সবাই একই বিধাতার সৃষ্টি

গোলাম কবির
হাড়ে প্রচণ্ড কাঁপন ধরানো শীতে কুয়াশার 
পেরেক গাঁথা জুবুথুবু রাতে হাঁটু মুড়ে 
পথের উপর বসে থাকা বেওয়ারিশ কুকুর 
এবং ভাসমান মানুষেরা একই সঙ্গে 
আবর্জনা কুড়িয়ে আগুনের উত্তাপ নেয় 
এ শহরের অভিজাত এলাকায়, 
ওদের মধ্যে কোনো হিংসা নয় জ্বলে ওঠে পারষ্পরিক ভালবাসার আগুন। 
এ যেনো এক স্বর্গীয় দৃশ্য যা দেখে বিধাতাও মুচকি হেসে ওঠেন ; ততক্ষণে এ শহরের 
অন্য কোথাও তখন কেউ বা হয়তো বস্তিতে আগুন লাগাবে বলে ফন্দি আঁটে 
ওদের সবশেষ আশ্রয় টুকুও ছিনিয়ে নেবে বলে। অন্য দিকে শহরেরই কিছু তরুণ যুবা বাড়ি বাড়ি গিয়ে পুরনো শীতবস্ত্র সংগ্রহ করে উত্তরের 
তীব্র শীতে কষ্ট পাওয়া গরীব মানুষগুলোর জন্য, ওদের কারো চোখে স্বপ্ন থাকে মানুষের দুঃখ ঘুচানোর, কেউ কেউ স্বপ্ন দেখে নিজেকে জনদরদী নেতা হিসেবে প্রচারের জন্য, 
অনেকে আবার লুকিয়ে লুকিয়ে নিজের যা কিছু সম্বল আছে তা থেকেই শীতের বস্ত্র বিলিয়ে দেয় গরীব ও অনাথআশ্রমে তাঁর সন্তুষ্টির জন্য!  সত্যিই কি বিচিত্র এই পৃথিবীর মানুষ গুলো 
অথচ সবাই একই বিধাতার সৃষ্টি!